45% ছাড় !

সালাম, মুসাফাহা, মুআনাকা ও অনুমতি প্রার্থনা

৳ 130.00 ৳ 72.00

সালামের কারণে জান্নাত লাভ হয়
من سلم على عشرة من المسلمين فكأنما اعتق رقبة وان مات من يومه اوجب الجنة (ابن جرير عن ابن عمر ، كنز العمال-৯/১২১)
হযরত আবদুল্লাহ ইবনে উমর রাযিয়াল্লাহু আনহু থেকে বর্ণিত, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, যে ব্যক্তি দশজন মুসলমানকে সালাম করল (এক দিনে) সে যেন একজন গোলাম আযাদ করল। আর যদি সে ঐ দিনই মারা যায়, তবে তার জন্য জান্নাত ওয়াজিব হবে। (সুবহানাল্লাহ্!) (ইবনে জারীর, কানযুল উম্মাল, নবম খ-, ১২১পৃষ্ঠা)

ما من مؤمن يسلم على عشرين رجلامن المسلمين الا وجبت له الجنة. (رواه الديلمي عن ابن عمر كنز العمال)
হযরত আবদুল্লাহ ইবনে উমর রাযিয়াল্লাহু আনহু থেকে বর্ণিত রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, যে মু’মিন মুসলমানই বিশ জন মুসলমানকে সালাম করবে, তার জন্য জান্নাত অনিবার্য হবে। (দায়লামী ও কানযুল উম্মাল)

من سلم على عشرين رجلا من المسلمين فى يوم جماعة او فرادى ثم مات عن يومه ذالك وجبت له الجنة وفى ليلته مثل ذالك. (طبرانى عن ابن عمر، كنزالعمال ايضا)
যে ব্যক্তি বিশ জন মুসলমানকে সালাম করল এক দিনে দলকে কিংবা একজন একজনকে এবং ঐ দিনই মারা গেল, তার জন্য জান্নাত অনিবার্য হল। আর ঐ দিন রাতে মারা গেলেও অনুরূপ হবে। (তাবারানী হযরত আবদুল্লাহ ইবনে উমর রাযিয়াল্লাহু আনহু থেকে এ হাদীস বর্ণনা করেন। কানযুল উম্মালও এ হাদীস উদ্ধৃত করেন।)

ব্যাখ্যা :
আল্লাহ্ তাআলা তাঁর বান্দাদের উপর অপরিসীম মেহেরবান। তাদের পুরস্কারের জন্য সহজ সহজ পন্থা নির্ধারণ করেছেন। দশ জন মুসলমানের উপর সালাম করা কিংবা বিশ জন মুসলমানের উপর সালাম করা দলগতভাবে কিংবা এককভাবে জান্নাতে প্রবেশের কারণ। কত বড় সৌভাগ্য। আল্লাহ্ তাআলা এর তাৎপর্য আমাদের নসীব করুন।
প্রথম হাদীসে দশজন, দ্বিতীয় ও তৃতীয় হাদীসে বিশজনের উল্লেখ আছে। এ পার্থক্য ব্যক্তি হিসাবেও হতে পারে এবং সময়, অবস্থা ও স্থান হিসাবেও হতে পারে। সুতরাং এতে বৈপরীত্য নেই।
প্রথম ও দ্বিতীয় হাদীসে দিনের শর্ত নেই। অনুরূপ প্রথম ও দ্বিতীয় হাদীসে দলবদ্ধতা ও এককত্বের শর্ত নেই। তৃতীয় হাদীসে দিনেরও শর্ত আছে এবং দল ও এককের শর্তও আছে।

Reviews

There are no reviews yet.

Be the first to review “সালাম, মুসাফাহা, মুআনাকা ও অনুমতি প্রার্থনা”