32% ছাড় !

কেউ কেউ কথা রাখে

৳ 280.00 ৳ 190.00

দীর্ঘ বারো বছর পর রামজিয়া শেহরিনের সাথে দেখা করতে এলেন লেখক, যিনি কিনা বারো বছর আগেও ছিলেন একজন পুলিশ অফিসার। সঙ্গে নিয়ে এলেন তার অপ্রকাশিত ব ই এর একটা কপি, বারো বছর আগে যেটির রহস্য উদ্ঘাটন করেও হারিয়েছিলেন হায়দার আলীর মত একজন মুক্তিযোদ্ধা এবং কর্তব্য পরায়ণ পুলিশ অফিসার কে।
.
কেসটা ছিল মূলত মিলি হত্যাকাণ্ড নিয়ে, যে ছিল রামজিয়ার বান্ধবী। গৃহবধূ মিলিকে ধর্ষণের পর গলাটিপে হত্যা করেছিল খুনী। দীর্ঘ খাটাখাটনির পর চড়াই-উতরাই পার করে অবশেষে খুনীকে ধরতে সক্ষম হন হায়দার আলী এবং লেখক। খুনি ছিল ভিক্টিমের চাচাতো ভাই-ইমতিয়াজ। অভিনব পদ্ধতিতে তার মুখ থেকে সব তথ্য বের করে নিয়েছিলেন হায়দার আলী। কিন্তু, রাজনীতিক দলের সহায়তার দরুণ বারবার পার পেয়ে যায় ইমতিয়াজ। জেল থেকে ছাড়া পেয়েই সে খুন করে হায়দার আলীকে। তারপর আচমকাই উধাও হয়ে যায় ইমতিয়াজ। কিন্তু কোথায়? সে কি আসলেই বেচে আছে? নাকি ঘুরে বেড়াচ্ছে লোকচক্ষুর অন্তরালে? আর মিলির শোকে শোকাতুর তার স্বামী মিনহাজ ই বা কোথায়? সেই রহস্যের খোজেই বারো বছর পর লেখক বেরিয়ে পড়লেন অজানার উদ্দেশে। কোথায় মিলবে এর কূল-কিনারা?

লেখক

Reviews

There are no reviews yet.

Be the first to review “কেউ কেউ কথা রাখে”